গাড়িতে ফোন চার্জ দিয়ে নিজেকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন না তো?

0
2
গাড়িতে ফোন চার্জ

আপনার ফোনে যতটুকু চার্জের দরকার, গাড়ির ইউএসবি পোর্ট তার চেয়ে কম পাওয়ার সরবরাহ করে। ফলে চার্জের সময় ফোন থেমে যেতে পারে অথবা ফোনে যে পরিমাণে চার্জ হয়েছে, তার থেকে চার্জ না দিলেও হয়তো বেশি চার্জ থাকত ফোনে।

ফোন চার্জিংয়ের জন্য আজকাল ইউএসবি পোর্টের রমরমা খুবই বেড়েছে। গাড়িতে হোক, পার্টিতে হোক যেখানেই যাচ্ছেন ইউএসবি পোর্টের সাহায্যে ফোনে টুক করে চার্জ দিয়ে দিচ্ছেন। আর এতে করে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনছেন। বিশেষত গাড়ির ক্ষেত্রে। গাড়ির ইউএসবি পোর্টে চার্জ দেওয়ার দিনের পর দিন চার্জ দিলে, কখনও তা যে আপনার মৃত্যু ডেকে আনতে পারে, তা কী জানতেন?
প্রথমত, আপনার ফোনে যতটুকু চার্জের দরকার, গাড়ির ইউএসবি পোর্ট তার চেয়ে কম পাওয়ার সরবরাহ করে। ফলে চার্জের সময় ফোন থেমে যেতে পারে অথবা ফোনে যে পরিমাণে চার্জ হয়েছে, তার থেকে চার্জ না দিলেও হয়তো বেশি চার্জ থাকত ফোনে।

নামজাদা মোবাইল টেকনিশিয়ান ব্রাড নিকোলস কী ভাবে গাড়িতে ইউএসবি পোর্টের মারফত চার্জ দিয়ে বিপদ ডেকে আনছেন তা বিশদে ব্যাখ্যা করেছেন। তাঁর কথায়,”অনেকে লক্ষ্য করেন যে ঘর থেকে কাজের জায়গায় যাওয়া বা আসার সময় ৩০-৬০ মিনিটের পথে ফোনে চার্জ হয়েছে। আর সেটা খুবই কম পরিমাণে। কেন এমনটা হয় বলুনতো? কারণ, গাড়ি চার্জার যতটুকু শক্তি সরবরাহ করছে, ফোন তার চেয়ে বেশি শক্তি ব্যবহার করছে।”

নিকোলস আরও যোগ করেন যে, “আপনার ফোন খুব বেশি পরিমাণে চার্জ নিতে পারে, যদি সিগারেট লাইটার পোর্ট ব্যবহার করা যায়। সিগারেট জ্বালানোর বেশিরভাগ লাইটারই দশ অ্যাম্পিয়ার পর্যন্ত পাওয়ার সরবরাহ করতে পারে। আর সেখানে অধিকাংশ চার্জার এক থেকে তিন অ্যাম্পিয়ার পাওয়ার দিতে পারে। ড্যামেজড চার্জার অসংগত শক্তি সরবরাহ করে, যার ফলে ফোনের তাপমাত্রা হুট করে বেড়ে যেতে পারে, ফোনের ভিতরের যন্ত্রাংশ ড্যামেজ হতে পারে। সেক্ষেত্রে বিস্ফোরণ হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে।”

গাড়ি থেকে ফোনে চার্জ দিলে গাড়ির ব্যাটারির শক্তিও শেষ হয়ে যেতে পারে। গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ অবস্থায় ইলেক্ট্রিসিটির ওপর নির্ভরশীল অ্যাকসেসরি, যেমন- রেডিয়ো, চালু থাকলেও গাড়ির ব্যাটারির শক্তি কমে যাবে। যাঁদের ভাল ব্যাটারির গাড়ি রয়েছে, তাঁদের চিন্তার কোনও কারণ নেই। কিন্তু গাড়ি যদি পুরনো মডেলের হয়, তাহলে তার ইউএসবি পোর্টের সাহায্যে ফোনে চার্জ না দেওয়াই শ্রেয়।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল, গাড়ি চালানোর সময় ফোন ব্যবহার করা এক্কেবারেই নিরাপদ নয়। নিকোলস জানিয়েছেন, যে কোনও মুহূর্তে চালকের হাত হুইল থেকে সরে যেতে পারে। নিমেষে রাস্তার ওপর থেকে দৃষ্টিও সরে যেতে পারে। ফলে সেই গাড়িতে থাকা সকলেই বিপজ্জনক ভাবে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে পারে।

তবে আসল এবং অত্যাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল, ফোনের ব্যাটারির চার্জ গ্রহণের স্বাভাবিক ক্ষমতার বাইরে চার্জ দিলে (যেমন- গাড়ির ইএসবি পোর্ট অথবা সিগারেট লাইটার অথবা ত্রুটিপূর্ণ চার্জার থেকে চার্জ দেওয়া) ব্যাটারির টেকসই ক্ষমতা কমে যেতে পারে। তাই ঘরে হোক আর অফিসে হোক যেখানেই যাচ্ছেন চার্জের প্রয়োজন হলে আসল চার্জারের সাহায্যেই চার্জ দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here