প্রশাসনে পদোন্নতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে

0
6
প্রশাসনে পদোন্নতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে
প্রশাসনে পদোন্নতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে

প্রশাসনে পদোন্নতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে

প্রশাসনে পদোন্নতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আনা হচ্ছে। পাশাপাশি একাধিক ব্যাচের পদোন্নতিতেও সংস্কার আসছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, আগমী ১৬ মে থেকে শুরু হতে যাওয়া এসএসবির বৈঠক থেকে নতুন পদ্ধতি কার্যকর হবে। এদিন উপসচিব থেকে যুগ্ম সচিব পদে পদোন্নতির বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। শুধুমাত্র ১৭তম ব্যাচের কর্মকর্তাদের যুগ্ম সচিব পদে পদোন্নতির জন্য বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে উপসচিব ও অতিরিক্ত সচিব পদেও পদোন্নতি দেওয়া হবে।

সাবেক একজন মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, চাকরির প্রথম শর্তই পদোন্নতি। পদোন্নতির সময় হলে কাউকে বঞ্চিত করে রাখার অধিকার কারো নেই। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক সত্যি হলো, এ দেশে এটাই চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

সূত্র জানায়, একইসঙ্গে একাধিক ব্যাচের কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দিতে গিয়ে দেখা যায়, কিছু ব্যাচের পদে পদোন্নতি প্রাপ্তির সময়সীমা অতিক্রান্ত হয়ে যায়। আবার কোনো কোনো ব্যাচের সময়মতো পদোন্নতি পাওয়া সহজতর হয়। ফলে এক ধরনের বৈষম্য তৈরি হয়। এ কারণে যখন যে ব্যাচের পদোন্নতি প্রাপ্তির সময়, তখন সেই ব্যাচের কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেওয়া হবে।

নিয়ম অনুযায়ী চাকরি স্থায়ী সাপেক্ষে কোনো কর্মকর্তার ১০ বছর পূর্ণ হলে তিনি উপসচিব হওয়ার যোগ্য হন। কিন্তু এখন একাধিক ব্যাচে যোগ দেওয়া কর্মকর্তাদের একইসঙ্গে পদোন্নতি দিতে গিয়ে কোনো ব্যাচকে ১৭ থেকে সর্বোচ্চ ২০ বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে।

চাকরিকাল ২০ বছর ও উপসচিব পদে ৫ বছর সন্তোষজনক চাকরিকাল পূর্ণ হলে কোনো কর্মকর্তা যুগ্ম সচিব হওয়ার যোগ্য হন। এক্ষেত্রেও একই পরিণতি লক্ষ্য করা গেছে। যুগ্ম সচিব থেকে অতিরিক্ত সচিব হতে চাকরিকাল ২৫ বছর পূর্ণ করতে হয় এবং যুগ্ম সচিব পদে ৩ বছর চাকরির মেয়াদ শেষ হলে তিনি অতিরিক্ত সচিব হওয়ার যোগ্য হন। অতিরিক্ত সচিব পদে ২ বছরের সন্তোষজনক চাকরি হলে তাকে সচিব পদের জন্য বিবেচনায় নেওয়ার বিধান রয়েছে। অবশ্য সচিব করার ক্ষেত্রে চাকরিকাল নিয়ম বিধি বিধান ছাড়াও তদ্বির, রাজনৈতিক পরিচয় আদর্শ ইত্যাদি বিবেচনায় নেওয়ার সংস্কৃতি প্রবল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here