মাদ্রাসা বোর্ডে জিপিএ-৫ বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ

0
13
মাদ্রাসা বোর্ডে জিপিএ-৫ বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ

মাদ্রাসা বোর্ডে জিপিএ-৫ বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে সোমবার। এ বছর পাসের হার বাড়লেও কমেছে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা। তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড। এই বোর্ডে দ্বিগুণ বেড়েছে জিপিএ-৫।

এ বছর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮৩.০৩ ভাগ। গত বছর ছিল ৭০.৮৯ ভাগ। অংশগ্রহণকারী ৩ লাখ ৬ হাজার ৭৮০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ২ লাখ ৫৪ হাজার ৭১০ জন। পাসের হার বেড়েছে ১২.১৪ ভাগ।

পাসের হারের পাশাপাশি প্রায় দ্বিগুণ বেড়েছে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থী। এ বছর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ২৮৭ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৩৭১ জন। এবার ২ হাজার ৯১৬ জন বেশি জিপিএ-৫ পেয়েছে।

এদিকে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮২.৮০ ভাগ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৪ হাজার ৫৫৬ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ২ হাজার ৮৪৫ জন। সে হিসাবে এ বছর জিপিএ-৫ কমেছে ৮ হাজার ২৮৯ জন।

আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৭২.২৪ ভাগ। গত বছর ছিল ৭১.৯৬ ভাগ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৭৫১ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ৪১৩ জন। এই বোর্ডে পাসের হার এবং জিপিএ-৫ দুটিই কিছুটা বেড়েছে।

এ বছর আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলে গড় পাসের হার ৮২.২০ ভাগ যা গত বছরের চেয়ে ৪.৪৩ ভাগ বেশি।

এ বছর জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। গত বছরের তুলনায় জিপিএ-৫ কমেছে ৫ হাজার ৩৫ জন।

সোমবার সকাল সোয়া ১১টায় সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ফল ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

তিনি জানান, এ বছর অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ২৭ হাজার ৮১৫ জন। পাস করেছে ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন। গত বছর অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২০ লাখ ২৬ হাজার ৫৭৪ জন। পাস করেছিল ১৫ লাখ ৭৬ হাজার ১০৪ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here